[বাংলা সাহিত্য জীবনী] ১৯ শতকের অন্যতম কিছু কবিদের নিয়ে - পর্ব ২

আপনার জ্ঞানপিপাসু বন্ধুদের সাথে শেয়ার করে এই সম্পর্কে জানান

আপনার জন্য আরো লেখা



জসিম উদ্দীন (১৯০৩-১৯৭৬)
  • কবির রচিত কাব্যগ্রন্থগুলো হচ্ছে রাখালী (কবির প্রথম গ্রন্থ), নকশী কাথার মাঠ (কবির শ্রেষ্ঠ রচনা), সোজন বাদিয়ার ঘাট, বালুচর, মাটির কান্না, রূপবতী, মা যে জননী কান্দে, ধানক্ষেত, সূচয়িনী।
  • লেখকের নাটকগুলো হচ্ছে বেদের মেয়ে, পল্লীবধূ, মধুমালা, পদ্মপার, গ্রামের মায়া।
  • বোবা কাহিনী জসিম উদ্দীন রচিত উপন্যাস।
  • চলে মুসাফির, যে দেশে মানুষ বড়, হলদে পরীর দেশ লেখকের ভ্রমণকাহিনী মূলক গ্রন্থ।
টেকনিকঃ
জসীমউদ্দিনের কাব্য: হলুদ বরণীর দেশে হাসু ডালিমকুমার, সখিনা ও সূচয়নী ভয়াবহ সেই দিনগুলোতে একপয়সার বাঁশি বাজিয়ে ধানক্ষেতের বালুচরে মাটির তৈরি কবর জলে লেখা নকশীকাঁথার কাফন মুড়িয়ে সোজন বাদিয়ার ঘাটে এসে রাখালির মা পল্লীজননী রঙ্গিলা নায়ের মাঝির জন্য কাঁদতে লাগল।

সৈয়দ মুজতবা আলী (১৯০৪-১৯৭৪)
  • তার রচিত উপন্যাস হচ্ছে অবিশ্বাস্য, শবনম। ‘দেশে বিদেশে’ তার বিখ্যাত ভ্রমনকাহিনী।
  • তার উল্লেখযোগ্য রম্যগল্প হচ্ছে পঞ্চতন্ত্র, চাচা কাহিনী, ময়ূরকন্ঠী, টুনিমেম।

বুদ্ধদেব বসু (১৯০৮-১৯৭৪)
  • রবীন্দ্রনাথের পর বুদ্ধদেব বসুকে ‘সব্যসাচী লেখক’ বলা হয়।
  • তার রচিত কাব্যগ্রন্থ হচ্ছে বন্দীর বন্দনা, কঙ্কাবতী।
  • তার উল্লেখযোগ্য কাব্যনাট্য হচ্ছে তপস্বী 3 তরঙ্গিনী, কলকাতার ইলেকট্রা 3 সত্যসন্ধ।
  • নির্জন স্বাক্ষর, জঙ্গম, তিথিডোর বুদ্ধদেব রচিত উপন্যাস।
মানিক বন্দ্যোপাধ্যায় (১৯০৮-১৯৫৬)
  • মার্কসবাদী উপন্যাসিক হিসাবে খ্যাতি অর্জন করেছিলেন। তার রচিত উপন্যাস হচ্ছে জননী, পদ্মা নদীর মাঝি, নুতুল নাচের ইতিকথা, দিবারাত্রির কাব্য।
  • মানিক বন্দ্যোপাধ্যায় কবে, কোথায় জন্মগ্রহণ করেনত ১৯ মে, ১৯০৮ সালে, ভারতের বিহারে।
  • তিনি মূলত ছিলেনতকথাসাহিত্যিক।
  • মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়ের রচিত প্রথম গল্পের নাম এবং যে পত্রিকায় প্রকাশিত হয়ত অতসী মামী. বিচিত্রা পত্রিকা (পৌষ সংখ্যা-১৩৩৫)
  • যৌনাকাঙ্খার সঙ্গে উদর পূর্তির সমস্যা ভিত্তিক তাঁর রচনার নামত পদ্মানদীর মাঝি (১৯৩৬)।
  • মানিক বন্দ্যোপাধ্যায় রচিত গল্পগুলোর নামত উপন্যাস : জননী (১৯৩৫) দিবারাত্রির কাব্য (১৯৩৫), পুতুলনাচের ইতিকথা (১৯৩৬), পদ্মানদীর মাঝি (১৯৩৬), শহরতলী (১৯৪০), অহিংসা (১৯৪১), শহরবাসের ইতিকথা (১৯৪৬), সোনার চেয়ে দামী (১৯৫১), স্বাধীনতার স্বাদ (১৯৫১), আরোগ্য (১৯৫৩) ইত্যাদি। গল্পগ্রন্থ: অতসী মামী ও অন্যান্য গল্প (১৯৩৫), প্রাগৈতিহাসিক (১৯৩৭), মিহি ও মোটা কাহিনী (১৯৩৮), সরীসৃপ (১৯৩৯), বৌ (১৯৪৩), সমুদ্রের স্বাদ (১৯৪৩) ইত্যাদি।
  • মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রথম প্রকাশিত উপন্যাসের নামত জননী (১৯৩৫)।
  • মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রথম প্রকাশিত গল্পগ্রন্থের নামত অতসী মামী ও অন্যান্য গল্প (১৯৩৫)।
  • শশী ও কুসুম কোন উপন্যাসের পাত্র-পাত্রীত পুতুলনাচের ইতিকথা।
  • মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপন্যাস অবলম্বনে ‘পদ্মানদীর মাঝি’ চলচ্চিত্রটি কে পরিচালনা করেনত গৌতম ঘোষ।
  • ‘পদ্মা নদীর মাঝি’ গ্রন্থের রচয়িতা কে? কোন জাতীয গ্রন্থ এবং কত সালে প্রকাশিতত মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়, উপন্যাস ১৯৩৬ সালে প্রকাশিত।
  • ‘প্রাগৈতিহাসিক’ এবং ফেরিওয়ালা’ গল্পগ্রন্থ দুটির রচয়িতাত মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়।
  • ‘পুতুল নাচের ইতিকথা’ এবং ‘শহর বাসের ইতিকথা’ উপন্যাস দুটির রচয়িতাত মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়।
  • তিনি মৃত্যুবরণ করেনত৩ ডিসেম্বর, ১৯৫৬; কলকাতা।

সুফিয়া কামাল (১৯১১-১৯৯৯)
  • তার রচিত কাব্য গ্রন্থ হচ্ছে সাঝের মায়া, মায়া কাজল, উদাত্ত পৃথিবী, অভিযাত্রিক।
  • লেখিকার শিশুতোষ গ্রন্থ হচ্ছে ইতল বিতল, ন3ল কিশোরের দরবারে।
  • কেয়ার কাটা (লেখিকার প্রথম গ্রন্থ) লেখিকার গল্পগ্রন্থ।
  • লেখিকার আত্নজীবনী হচ্ছে একালে আমাদের কাল।

আহসান হাবীব 
  • তার উল্লেখযোগ্য কাব্যগ্রন্থ হচ্ছে রাত্রিশেষ, ছায়া হরিণ, সারা দুপুর, আশায় বসতি, মেঘ বলে চৈত্রে যাব।
  • তার উল্লেখযোগ্য উপন্যাস হচ্ছে অরণ্যে নীলিমা, রানী খালের সাকো।

শওকত ওসমান
  • শওকত ওসমান জন্মগ্রহণ করে১৯১৭ সালের ২ জানুয়ারি, ভারতের হুগলি।
  • শওকত ওসমানের প্রকৃত নাম শেখ আজিজুর রহমান।
  • তিনি মূলত পরিচিত কথাসাহিত্যিক।
  • শওকত ওসমানের প্রকাশিত প্রধান গ্রন্থ
  • প্রবন্ধঃ সংস্কৃতির চড়াই উৎরাই (১৯৮৫), মুসলিম মানসের রূপান্তর (১৯৮৬)।
  • উপন্যাসঃ ক্রীতদাসের হাসি (১৯৬২), সমাগম (১৯৬৭), চৌরসন্ধি (১৯৬৮), রাজা উপাখ্যান (১৯৭০৯), জাহান্নাম হইতে বিদায় (১৯৭১), দুই সৈনিক (১৯৭৩), নেকড়ে অরণ্য (১৯৭৩), পতঙ্গ পিঞ্জুর (১৯৮৩), রাজসাক্ষী (১৯৮৫), জলাংগী (১৯৮৬), পুরাতন খঞ্জুর (১৯৮৭)।
  • গল্পঃপিঁজরাপোল (১৩৫৮), পুনা আপা ও অন্যান্য গল্প (১৩৫৯), প্রস্তর ফলক (১৯৬৪), উভশৃঙ্গ (১৩৭৫), ঈশ্বরের প্রতিদ্বন্দ্বী (১৯৯০) ইত্যাদি।
  • নাটকঃ আমলার মামলা (১৯৪৯), তস্কর ও লস্কর (১৯৫৩), বাগদাদের কবি (১৩৫৯), পূর্ণ স্বাধীনতা চূর্ণ স্বাধীনতা (১৯৯০)।
  • শিশুতোষঃ ওটেন সাহেবের বাংলো (১৯৪৪), তারা দুই জন (১৯৪৪), ক্ষুদে সোশালিস্ট (১৯৭৩)।
  • শওকত ওসমানের ১৯৪৬ সালে দৈনিক আজাদের সাহিত্য সাময়িকীতে প্রকাশিত হয় উপন্যাস ‘বনি আদম’।
  • গ্রন্থাকারে প্রকাশিত তাঁর প্রথম পুস্তক জননী (১৯৬১)।
  • তিনি পুরস্কার লাভ করেন বাংলা একাডেমী পুরস্কার (১৯৬২), আদমজি সাহিত্য পুরস্কার (১৯৬৬), একুশে পদক (১৯৮৩), ফিলিপস পুরস্কার (১৯১১)।
  • কোন গ্রন্থ রচনার জন্য তাঁকে আদমজি পুরস্কার দেয়া হয় ক্রীতদাসের হাসি।
  • কোন গ্রন্থের জন্য তিনি ফিলিপস পুরস্কার লাভ করেন ঈশ্বরে প্রতিদ্বন্দ্বী গল্পগ্রন্থের জন্য।
  • শওকত ওসমানের কালোত্তীর্ণ উপন্যাস ক্রীতদাসের হাসি। প্রতীকশ্রয়ী উপন্যাস।
  • শওকত ওসমানের প্রথম উপন্যাস বনি আদম (১৯৪৩)।
  • জননী ও ক্রীতদাসের হাসির ইংরেজি অনুবাদ কোথা থেকে প্রকাশিত হয় ওমসান জামালকৃত জননী (ইংরেজিতেও একই নাম রাখা হয়েছে) অক্সফোর্ড (১৯৯৩) ও কবীর চৌধুরীকৃত এ শ্লেভ লাফস (১৯৭৬) দিল্লি থেকে প্রকাশিত হয়।
  • ‘টাইম মেশিন’ শওকত ওসমানের কোন জাতীয় রচনা অনুবাদ গ্রন্থ।
  • শওকত ওসমানের তিনটি গল্প গ্রন্থের নাম ‘প্রস্তর ফলক’, সাবেক কাহিনী এবং ‘জুনু আপা ও অন্যান্য গল্প’।
  • শওকত ওসমানের কয়েকটি উল্লেখযোগ্য উপন্যাসের নাম করুন বনি আদম, জননী, ক্রীতদাসের হাসি ইত্যাদি।
  • ক্রীতদাসের হাসি কোন জাতীয় রচনা প্রতীকধর্মী ঐতিহাসিক উপন্যাস। ১৯৬৬ সালে প্রকাশিত।
  • ‘আমলার মামলা’ এবং ‘করের মনি’ কোন জাতীয় রচনা নাটক।
  • ‘ওয়েটন সাহেবের বাংলা’ কোন জাতীয় রচনা কিশোর গ্রন্থ, শওকত ওসমান।
  • তিনি মৃত্যুবরণ করেন ১৯৯৯ সালে।

মুনীর চৌধুরী
  • আবু নয়ীম মোহাম্মদ মুনীর চৌধুরী (জন্ম:২৭শে নভেম্বর, ১৯২৫ – মৃত্যু:১৪ই ডিসেম্বর, ১৯৭১) একজন বাংলাদেশী শিক্ষাবিদ, নাট্যকার, সাহিত্য সমালোচক, ভাষাবিজ্ঞানী এবং শহীদ বুদ্ধিজীবী।
  • তিনি তৎকালীন ঢাকা জেলার মানিকগঞ্জে জন্মগ্রহণ করেন।
  • তাঁর পৈত্রিক নিবাস নোয়াখালী জেলার চাটখিল থানাধীন গোপাইরবাগ গ্রামে।
  • ১৯৫৪ সালের ১৫ই নভেম্বর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজির অস্থায়ী প্রভাষক হিসেবে যোগ দেন।
  • মুনীর চৌধুরী ১৯৬৫ সালে কেন্দ্রীয় বাঙলা উন্নয়ন বোর্ডের উদ্যোগে বাংলা টাইপরাইটারের জন্য উন্নতমানের কী-বোর্ড উদ্ভাবন করেন, যার নাম মুনীর অপ্টিমা।
  • মুনীর চৌধুরী ১৯৫৩ সালে কারাবন্দী অবস্থায় কবর নাটকটি রচনা করেন।
  • মীর মানস (১৯৬৫) প্রবন্ধ সংকলনের জন্য দাউদ পুরস্কার এবং পাক-ভারত যুদ্ধ সম্পর্কে লেখা সাংবাদিকতাসুলভ রচনা-সংকলন রণাঙ্গন (১৯৬৬)-এর জন্য সিতারা-ই-ইমতিয়াজ উপাধি লাভ করেন।
  • ১৯৭১ সালের ১৪ই ডিসেম্বর মুনীর চৌধুরীকে পাকিস্তানি সেনাবাহিনীদের সহযোগী আল-বদর বাহিনী তাঁর বাবার বাড়ি থেকে অপহরণ করে ও সম্ভবত ঐদিনই তাঁকে হত্যা করে
উল্লেখযোগ্য রচনাবলিঃ
  • নাটক: রক্তাক্ত প্রান্তর (১৯৬২) [পানিপথের তৃতীয় যুদ্ধের কাহিনী এর মূল উপজীব্য। নাটকটির জন্য তিনি ১৯৬২ সালে বাংলা একাডেমি পুরস্কার পান।], চিঠি (১৯৬৬), কবর (১৯৬৬) {নাটকটির পটভূমি হলো ১৯৫২ এর ভাষা আন্দোলন।}, দণ্ডকারণ্য (১৯৬৬), পলাশী ব্যারাক ও অন্যান্য (১৯৬৯)
  • অনুবাদ নাটক: কেউ কিছু বলতে পারে না (১৯৬৯); জর্জ বার্নার্ড শ-র You never can tell-এর বাংলা অনুবাদ, রূপার কৌটা (১৯৬৯); জন গলজ্ওয়র্দি-র The Silver Box-এর বাংলা অনুবাদ, মুখরা রমণী বশীকরণ (১৯৭০); উইলিয়াম শেক্স্পিয়ারের Taming of the Shrew-এর বাংলা অনুবাদ
  • প্রবন্ধ গ্রন্থ: ড্রাইডেন ও ডি.এল. রায় (১৯৬৩, পরে তুলনামূলক সমালোচনা গ্রন্থে অন্তর্ভুক্ত), মীর মানস (১৯৬৫), রণাঙ্গন (১৯৬৬)(সৈয়দ শামসুল হক ও রফিকুল ইসলামের সাথে একত্রে), তুলনামূলক সমালোচনা (১৯৬৯), বাংলা গদ্যরীতি (১৯৭০)
  • অন্যান্য: An Illustrated Brochure on Bengali Typewriter (1965)
  • ১৯৮২ সাল থেকে ১৯৮৬ সাল পর্যন্ত বাংলা একাডেমী থেকে আনিসুজ্জামানের সম্পাদনায় চার খণ্ডে মুনীর চৌধুরী রচনাবলী প্রকাশিত হয়। প্রথম খণ্ডে (১৯৮২) মৌলিক নাট্যকর্ম, দ্বিতীয় খণ্ডে (১৯৮৪) অনুবাদমূলক নাট্যকর্ম, তৃতীয় খণ্ডে (১৯৮৪) সমালোচনামূলক গ্রন্থাবলি এবং চতুর্থ খণ্ডে (১৯৮৬) ছোট-গল্প, প্রবন্ধ, পুস্তক সমালোচনা ও আত্মকথনমূলক রচনা প্রকাশিত হয়।
  • পুরস্কার: বাংলা একাডেমী পুরস্কার (নাটক), ১৯৬২; দাউদ পুরস্কার (মীর মানস গ্রন্থের জন্য) ১৯৬৫, সিতারা-ই-ইমতিয়াজ (১৯৬৬)
টেকনিকঃ 
মুনীর চৌধুরীর নাটক: মুখরা রমণীর শয়ন কক্ষে রূপার কৌটায় রাখা দন্ডকারণ্যের রক্তাক্ত প্রান্তরে কবরে শায়িত এক যোদ্ধার চিঠির বিষয়ে ঘরের কেউ কিছু বলতে পারে না।
শহীদুল্লাহ কায়সার 
  • শহীদুল্লাহ কায়সার জন্মগ্রহণ করেন ১৬ ফেব্রুয়ারি, ১৯২৭; ফেনীতে।
  • তিনি মূলত পরিচিত সাংবাদিক ও সাহিত্যিক।
  • জহির রায়হানের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক সহোদর ভাই।
  • কমিউনিস্ট পার্টির পক্ষ থেকে ভাষা আন্দোলনের নেতৃত্ব প্রদান করেন ১৯৫২।
  • তিনি কোন পত্রিকায় যোগদানের মধ্যদিয়ে সাংবাদিকতার পেশা গ্রহণ করেন সাপ্তাহিক ইত্তেফাক।
  • তিনি কোন শিরোনামে উপসম্পাদকীয় রচনা করেন রাজনৈতিক পরিক্রমা, বিচিত্র কথা।
  • তিনি কোন দুটি উপন্যাস লিখে খ্যাত সারেং বৌ (১৯৬২), সংশপ্তক (১৯৬২)।
  • ‘রাজবন্দীর রোজনামচা’ নামক তাঁর স্মৃতিকথা কবে প্রকাশিত ১৯৬২ সালে।
  • তাঁর ভ্রমণবৃত্তান্তের নাম পেশোয়ার থেকে তাসখন্দ (১৯৬৬)।
  • তিনি পুরস্কার লাভ করেন আদমজি পুরস্কার (১৯৬২), বাংলা একাডেমী পুরস্কার (১৯৬২)।
  • ‘পেশোয়ার থেকে তাসখন্দ’ শহীদুল্লাহ কায়সারের কোন জাতীয় রচনা ভ্রমণ কাহিনী।
  • ‘রাজবন্দীর রোজনামচা’ কে রচনা করেছেন এবং এটি কোন জাতীয় রচনা শহীদুল্লাহ কায়সার, কারা কাহিনী।
  • ‘সারেং বউ, এবং ‘সংশপ্তক’ কোন জাতীয় রচনা উপন্যাস।
  • তিনি কত সালে কিভাবে মারা যান ১৯৭১ সালের ১৪ ডিসেম্বর পাক হানাদার বাহিনীর এদেশীয় দোসর আলবদর বাহিনীর সদস্যগণ তাঁর ঢাকার কায়েতটুলির বাসভবন থেকে তাকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। এরপর তাঁর আর কোন সন্ধান পাওয়া যায় নি।

শামসুর রাহমান
  • শামসুর রাহমান জন্মগ্রহণ করেন ১৯২৯ সালের ২৪ অক্টোবর, বিক্রমপুরের পাড়াতলি গ্রামে।
  • তিনি মূলত পরিচিত রোমান্টিক আধুনিক কবি।
  • তার দুটি বিখ্যাত কবিতার নাম স্বাধীনতা তুমি, তুমি আসবে বলে হে স্বাধীনতা।
  • শামসুর রাহমানের উল্লেখযোগ্য গ্রন্থ কবিতাঃ মৃত্যুর পূর্ব পর্যন্ত তাঁর ৬৫টি কাব্যগ্রন্থ প্রকাশিত হয়েছে। এগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্যঃ প্রথম গান, দ্বিতীয় মৃত্যুর আগে (১৯৬০), রৌদ্র করোটিতে (১৯৬৩), বিধ্বস্ত নীলিমা (১৯৬৭), বন্দী শিবির থেকে (১৯৭২), এক ধরনের অহংকার (১৯৭৫), শূন্যতায় তুমি শোকসভা (১৯৭৭), এক ধরনের শোকসভা (১৯৭৭), বাংলাদেশ স্বপ্ন দ্যাখে (১৯৭৭), উদ্ভট উটের পিঠে চলছে স্বদেশ (১৯৮২), যে অন্ধ সুন্দরী কাঁদে (১৯৮৪), অবিরল জলাভূমি (১৯৮৬), এক ফোঁটা কেমন অনল (১৯৮৬), বুক তাঁর বাংলাদেশের হৃদয় (১৯৮৮), হরিণের হাড় (১৯৯৩), উজাড় বাগানে (১৯৯৫), সৌন্দর্য আমার ঘরে (১৯৯৮), স্বপ্নে ও দুঃস্বপ্নে বেঁচে আছি (১৯৯৯), শুনি হৃদয়ের ধ্বনি (২০০০), ভষ্মস্তূপে গোলাপের হাসি (২০০২), ভাঙাচোরা চাঁদ মুখ কালো করে ধুঁকছে (২০০৩), কৃষ্ণপক্ষে পূর্ণিমার দিকে (২০০৪), গোরস্থানে কোকিলের করুণ আহবান (২০০৫), অন্ধকার থেকে আলোয় (২০০৬), না বাস্তব না দুঃস্বপ্ন (২০০৬),
  • উপন্যাসঃ মোট ৪টি উপন্যাস লিখেছেন: অক্টোপাস (১৯৮৩), অদ্ভুত আঁধার এক (১৯৮৫), নিয়ত মন্তাজ (১৯৮৫), এলো সে অবেলায় (১৯৯৪।
  • প্রবন্ধঃ আমৃত্যু তাঁর জীবনানন্দ (১৯৮৬), কবিতা এক ধরনের আশ্রয় (২০০২)। আত্মস্মৃতিঃ স্মৃতির শহর (১৯৭৯), কালের ধুলোয় লেখা (২০০৪)।
  • শামসুর রাহমানের একটি শিশু সাহিত্যের নাম ধান ভানলে কুঁড়ো দেব।
  • কত সালে শামসুর রাহমান আদমজী পুরস্কার এবং জীবনানন্দ দাশ পুরস্কার লাভ যথাক্রমে ১৯৬৩ সালে এবং ১৯৭৩ সালে।
  • শামসুর রাহমানের কয়েকটি উল্লেখযোগ্য কাব্যগ্রন্থের নাম বাংলাদেশ স্বপ্ন দেখে, উদ্ভূট উটের পিঠে চলেছে স্বদেশ, বিধ্বস্ত নীলিমা, ফিরিয়ে দাও ঘাতক কাঁটা, মাতাল ঋত্বিক ইত্যাদি।
  • ‘স্বাধীনতা তুমি’ কবিতাটি শামসুর রাহমানের কোন কাব্যগ্রন্থের অন্তর্গত শামসুর রাহমানের শ্রেষ্ঠ কবিতা’ কাব্যগ্রন্থের অন্তর্গত।
  • ‘বন্দী শিবির থেকে’ কোন জাতীয় গ্রন্থ রচনা করেছেন আত্মজীবনীমূলক গ্রন্থ।
  • শামসুর রাহমান কত সালে বাংলা একাডেমি পুরস্কার এবং মিতশুবিসি (জাপান) পুরস্কার লাভ করে যথাক্রমে ১৯৬৯ এবং ১৯৮২ সালে।
  • শামসুর রাহমানের আত্মজীবীমূলক গদ্য রচনা স্মৃতির শহর।
  • শামসুর রাহমানের তিনটি কাব্যগ্রন্থের নাম বাংলাদেশ স্বপ্ন দেখে, মাতাল ঋত্বিক, ফিরিয়ে নাও ঘাতক কাঁটা।
  • শামসুর রাহমানের অনুবাদ গ্রন্থ ফ্রস্টারের কবিতা।
  • তিনি পুরস্কার লাভ করেনআদমজি পুরস্কার (১৯৬৩), বাংলা একাডেমী পুরস্কার (১৯৬৯), একুশে পদক (১৯৭৭), স্বাধীনতা পুরস্কার (১৯৯১)।
  • শামসুর রাহমান মৃত্যুবরণ করেনত ২০০৬ সালের ১৭ইং আগস্ট সন্ধ্যায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন।


নাম

অর্থনীতির হিসাব-নিকাশ,3,আমাদের পরিবেশ,2,ইংরেজীকে সহজ করে ভাবুন,1,খাবার-পুষ্টি ও স্বাস্থ,2,গুগলের সাথে কিছুক্ষন,1,চলুন না ! ঐ দিকটায় একটু ডু মেরে আসি,1,প্রেজেন্টেশনের ময়না তদন্ত,3,বাংলা-বাঙালীর সাহিত্য,11,বাঙালী ও বাংলাদেশ,29,বি সি এস-ই স্বপ্ন,9,বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি,10,বিশ্ব যোগাযোগ,2,ব্যাংকিং পেশা IS PASSION,3,CV নিয়ে অল্প স্বল্প,2,Viva সমাচার,4,
ltr
item
ইচ্ছে: [বাংলা সাহিত্য জীবনী] ১৯ শতকের অন্যতম কিছু কবিদের নিয়ে - পর্ব ২
[বাংলা সাহিত্য জীবনী] ১৯ শতকের অন্যতম কিছু কবিদের নিয়ে - পর্ব ২
জসিম উদ্দীন (১৯০৩-১৯৭৬) কবির রচিত কাব্যগ্রন্থগুলো হচ্ছে রাখালী (কবির প্রথম গ্রন্থ), নকশী কাথার মাঠ (কবির শ্রেষ্ঠ রচনা), সোজন বাদিয়ার ঘাট, বালুচর, মাটির কান্না, রূপবতী, মা যে জননী কান্দে, ধানক্ষেত, সূচয়িনী।
https://4.bp.blogspot.com/-fa_iWFT_Bws/WxACSDTjqoI/AAAAAAAAA_k/qYuHIezhQnEBXS1WAUGioTVdFQxFW-lKwCLcBGAs/s400/polli-kobi-jasimuddin.jpg
https://4.bp.blogspot.com/-fa_iWFT_Bws/WxACSDTjqoI/AAAAAAAAA_k/qYuHIezhQnEBXS1WAUGioTVdFQxFW-lKwCLcBGAs/s72-c/polli-kobi-jasimuddin.jpg
ইচ্ছে
https://blog.aamaricche.com/2018/05/bangla-poet-brief-bibliography-19.html
https://blog.aamaricche.com/
https://blog.aamaricche.com/
https://blog.aamaricche.com/2018/05/bangla-poet-brief-bibliography-19.html
true
4366569560520032408
UTF-8
সবগুলি লেখা দেখুন কোনো লেখা খুঁজে পাওয়া যায় নি ! সব দেখতে আরো পড়ুন মন্তব্য মন্তব্য বাতিল করুন মুছুন দ্বারা হোম বাকি অংশটুকু পোস্ট সব দেখতে আপনার জন্য আরো লেখা সহজেই খুঁজুন ইচ্ছে আর্কাইভ খুঁজুন সবগুলি লেখা দুঃখিত ! আপনার ইচ্ছেটা খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। কিছুক্ষন পর আবার চেষ্টা করুন। অথবা ইচ্ছে তে যান রবিবার সোমবার মঙ্গলবার বুধবার বৃহস্পতিবার শুক্রবার শনিবার রবিবার সোমবার মঙ্গলবার বুধবার বৃহস্পতিবার শুক্রবার শনিবার জানুয়ারি ফেব্রুয়ারী মার্চ এপ্রিল মে জুন জুলাই আগস্ট সেপ্টেম্বর অক্টোবর নভেম্বর ডিসেম্বর জানুয়ারি ফেব্রুয়ারী মার্চ এপ্রিল মে জুন জুলাই আগস্ট সেপ্টেম্বর অক্টোবর নভেম্বর ডিসেম্বর এই মাত্র ১ মিনিট আগে $$1$$ মিনিট আগে ১ ঘন্টা আগে $$1$$ ঘন্টা আগে গতকাল $$1$$ দিন আগে $$1$$ সপ্তাহ আগে ৫ সপ্তাহ এর বেশি আগে ফোলোয়ার ফোলো অবশিষ্টাংশ প্রিমিয়াম সম্পূর্ণ পোস্ট দেখতে Facebook এ শেয়ার করে Like করুন সবগুলি কোড কপি করতে সবগুলি কোড সিলেক্ট করতে সবগুলি কোড কপি হয়েছে আপনার ক্লিপ বোর্ডে Can not copy the codes / texts, please press [CTRL]+[C] (or CMD+C with Mac) to copy